ড্যান্সিং ম্যান – ঐতিহাসিক আলোকচিত্র

ড্যান্সিং ম্যান
Source: Wikipedia

ড্যান্সিং ম্যান নামটা শুনতেই কেমন যেনো শুনাচ্ছে। শুনানোরই কথা ! স্পাইডারম্যান শুনেছি, সুপারম্যান শুনেছি কিন্তু এ কেমন ম্যান যাকে কিনা কোনাকুনিভাবে ড্যান্সিং ম্যান নামে অভিহিত করা হলো, চলুন দেখি এই অদ্ভুত নামের মানুষটির অদ্ভুত্ব কী?

ড্যান্সিং ম্যান হলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর অস্ট্রেলিয়ার রাস্তা থেকে ধারণ করা একটি ঐতিহাসিক আলোকচিত্র বা ভিডিওচিত্রের নাম।

১৯৪৫ সালের ১৫ই আগস্ট দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে মানুষ যুদ্ধ জয় উদ্‌যাপন করার জন্য রাস্তায় নেমে আসে। এসময় একজন প্রতিবেদক একজন আনন্দিত ব্যক্তির কাছ থেকে তার অনুভূতি জানতে চাচ্ছিলেন। সেই সময় লোকটি অনুভুতি বলতে গিয়ে খুশিতে নেচে উঠেন। লোকটি নাচার সময় তিনি অস্ট্রেলীয় সংস্করণের নিউজরিল মুভিটোন সংবাদের মোশন পিকচার ফিল্মে ধরা পরেন। দৃশ্যটি বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়তা পায় এবং এটি অস্ট্রেলীয় সংস্কৃতিতে অন্যন্য স্থান দখল করে আছে।

একই সাথে এই আলোকচিত্রকে অস্ট্রেলিয়া ও বিভিন্ন দেশে যুদ্ধজয়ের প্রতীকি ছবি হিসেবে মনে করা হয়।

ড্যান্সিং ম্যান এর পরিচিতি

ড্যান্সিং ম্যানের পরিচিতি নিয়ে অনেক বিতর্ক রয়েছে। ফ্রাঙ্ক ম্যাকঅ্যালারি নামে একজন অবসরপ্রাপ্ত ব্যারিস্টার দাবী করেন ১৯৪৫ সালের ১৫ই আগস্ট সিডনির এলিজাবেথ সড়কের ব্যাক্তিটি তিনি নিজে। রাণীর পরামর্শক চেস্টার পোর্টার ও সাবেক ক্ষতিপূরণ আদালতের বিচারক ব্যারি এগান উভয়ই ব্যাক্তিটিকে ম্যাকঅ্যালারি বলে নিশ্চিত করেন।

অস্ট্রেলীয় সেভেন টেলিভেশন নেটওয়ার্ক “Where are they now?” নামে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রহস্য সমাধানের চেষ্ঠা করেছিল। টেলিভিশন নেটওয়ার্ক একজন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ ভাড়া করেছিল যিনি ছবিটি বিশ্লেষণ করে বলেন ছবির ব্যক্তিটি ম্যাকঅ্যালারি হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

অস্ট্রেলীয় রয়াল মিন্ট ২০০৫ সালের একটি এক ডলারের মুদ্রায় বিষয়টিকে স্বরণীয় করে রাখতে আর্ন হিল নামে একজনকে চিত্রাইত করেন। মি. হিল বলেন, “ক্যামেরা যখন আমার দিকে ঘুরলো তখন আমি একটু লাফ দিয়েছিলাম।” মুদ্রাটির নকশা করেন ওজেসি পেইত্রানিক, মুদ্রাটিতে কোন নাম লেখা হয় নি।

ফিল্ম ওয়ার্ল্ড পিটি লি. এর রেবেকা কেনান বলেন নৃত্যরত লোকটি সম্ভবত প্যাট্রিক ব্ল্যাকআল। ব্ল্যাকআল দাবী করেন, তিনিই হলেন মূল ড্যান্সিং ম্যান ও তিনি সংবিধিবদ্ধ ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষরও করেছেন।

SHARE