fbpx

ঢাকার মজাদার সিংগারা ও তার আদিগল্প

সিংগারা বাংলাদেশের বহুল জনপ্রিয় খাবারগুলোর মধ্যে একটি । ঢাকা শহরের এমন কোন এলাকা খুজে পাওয়া যাবে না , যেখানে কিনা সিংগারা নামের ছোট  তেলে ভাজা খাবারটি পাওয়া যায় না। বর্তমানে দেশের সকল বাজারেই কোন না কোন ভাবে ছড়িয়ে আছে সিংগারা নামের ছোট সুস্বাদু এই খাবারটি। অনেক জায়গার সিঙ্গারাই ভাল। স্থানভেদে মানুষের রুচির উপর নির্ভর করেও সিংগারার স্বাদ পরিবর্তন হয়।

সিঙ্গারা নামের এই খাবারটা  স্বদেশি না বিদেশি?  কোথায় এর জন্ম ?

বাঙালি-অবাঙালি সব বয়সের মানুষের প্রিয় খাবারের মধ্যে সিঙ্গারা ভালবাসেন এ দেশের হাজার হাজার খাদ্য রসিক মানুষ। তবে জানেন তো, এই সিঙ্গারা আদতে কোনও বাঙালি বাংলাদেশের কিংবা ভারতীয় ‘খাবার’ নয়! ইতিহাসবিদের মতে, ফার্সি শব্দ ‘সংবোসাগ’ থেকেই এই সিঙ্গারা শব্দের উৎপত্তি। তাঁদের দাবি, গজনবী সাম্রাজ্যে সম্রাটের দরবারে এক ধরনের নোনতা মুচমুচে খাবার পরিবেশন করা হতো। যার মধ্যে কিমা, শুকনো বাদাম জাতীয় অনেক কিছু দেওয়া হতো। এটাই নাকি সিঙ্গারার আদি রূপ।

তবে সিঙ্গারার সৃষ্টি নিয়ে রয়েছে মতান্তর এবং বিতর্ক থাকলেও ভারতের পরেই বাংলাদেশে আসার পর যে এর স্বাদ আর উপকরণে আমূল পরিবর্তন এসেছে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই!

সিংগারা নিয়ে দাবি কি শুধু একজনের ? ইরানি ইতিহাসবিদ আবুল ফজল বায়হাকিরে এর দাবি, ইরান থেকেই নাকি সিঙ্গারা এ দেশে এসেছে। অর্থাৎ তাঁর মতে সিঙ্গারার জন্মস্থান ইরান। বায়হাকির ‘তারিখ-এ-বেহাগি’ বইয়েও ‘সাম্বোসা’র উল্লেখ করা হয়েছে। তার দাবি অনুযায়ী, ইরানের এই ‘সাম্বোসা’ই সিঙ্গারার আদি রূপ। আমির খসরুর রচনাতেও এর উল্লেখ রয়েছে।

ষোড়শ শতকে পর্তুগিজরা ভারতীয় উপমহাদেশের মাটিতে পদার্পনের পর এ দেশের মানুষের পরিচয় হয় ‘আলু’ নামের চমৎকার এক সবজির সঙ্গে। পরবর্তিকালে এই সবজিকে এ দেশের মানুষ নিজেদের প্রতিদিনের খাবার হিসেবেই গ্রহন করেছে ! ষোড়শ শতকের পর থেকে সিঙ্গারার মূল উপকরণ হয়ে ওঠে এই আলু। এ দেশে সিংগারা আর আলুর গন্ডির মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই  মাংসের সিঙ্গারা ,কলিজা সিঙ্গারা, ফুলকপির সিঙ্গারা, পনিরের সিঙ্গারা, ক্ষিরের সিঙ্গারা ইত্যাদি নারিকেলের সিঙ্গারা,পিয়াজের সিঙ্গারা, নুডুলসের সিংগারা নানা রকমের বা নানা স্বাদের সিঙ্গারার চলতে থাকলেও কিন্ত আলুর পুর দেওয়া সিঙ্গারাই সবচেয়ে জনপ্রিয়। তাই তো আলু ছাড়া সিঙ্গারার কথা আমরা ভাবতেই পারি না!

এক নজরে ঢাকার বিখ্যাত কিছু সিংগারার কথা জেনে নেই তাহলে ,

পুরানঢাকার কোর্ট কাচারীর সামনের ছোট সিংগারা,  ধানমণ্ডির নিজাম শঙ্কর প্লাজার পশ্চিম পার্শে টং দোকানের সিঙ্গারা , মতিঝিল এর মার্লিন। মৌচাক মার্কেট এর পেছনে ‘আনারকলি’ মার্কেট এর সিঁড়ির নিচের সিংগারা। ছায়ানটের প্রীণন ক্যফের সিঙ্গারা পাওয়া যায় ! মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুলের সামনে রাস্তার পাশের . শহীদ ফারুক সরকের টনি টাওয়ারের উল্টোদিকের সিংগারা এছাড়াও ঢাকায় অনেক জায়গায় পাওয়া যায়, কোনটা সবচেয়ে ভাল বলা কষ্ট কারণ এতো বড় শহরে নির্দিষ্ট করে বলা যায় না।