অভিশপ্ত সুপারম্যান সিরিজ : কপাল পুড়েছিলো যাদের

সুপারম্যান

পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় কমিকের একটি হলো সুপারম্যান , যার অনেকগুলো মুভি, টিভি সিরিজ এবং কার্টুন বের হয়েছে। আমাদের অনেকেরই প্রিয় সুপার হিরো এই সুপারম্যান। যদিও আমাদের জানা নেই পছন্দের এই চরিত্রটির সাথে যুক্ত হওয়া অভিনেতা ও কলাকুশলীদের সাথে কি কি ঘটেছে ! জানলে কিছুটা হলেও বিস্ময়ে চোখ বড় করে তাকাবেন !

আপনি কি জানেন ২০০৬ সালের মেগা বাজেটের মুভি “Superman Returns” ছবিটিকে হলিউড কতটা অগ্রাহ্য করেছিলো? কেনোই বা করেছিলো? এর পেছনে রয়েছে অনেক অভিশপ্ত ঘটনা। এই কারণগুলো শুনে মনেই হবে যে, কোনো এক অজানা শক্তি ছবিটির বিপক্ষে ছিলো, যে চাইছিলো ছবিটা না হোক।

চলুন জেনে নেয়া যাক যে কারণে সুপারম্যান সিনেমাটি অভিশপ্ত হিসেবে বিবেচিত…

  1. শৈশবে সুপারম্যান কার্টুন দেখেনি, একবিংশ শতাব্দীর এমন শিশু খুব কম আছে। এই সুপারম্যান কার্টুনটি প্রথম তৈরী করেন ডেভ ফ্লেশচার এবং ম্যাক্স ফ্লেশচার। তারা কার্টুনটা বানানোর পরপরই চাকরি হারান, যার কারণটা আজও সবার কাছে অজানাই রয়ে গেছে।
  2. সুপারম্যান ছবিটির প্রথম সিরিজে অভিনয় করেন কির্ক এলিন। তিনি হঠাৎ করেই ঘোষণা দেন যে, তিনি এই ছবির পর আর কোনো ছবি করবেন না। এরপর তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খাওয়া শুরু করেন, যার কারণে তার মৃত্যু হয়।
  3. সুপারম্যান ছবির নেক্সট সিরিজে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন জর্জ রিভস, তার রহস্যজনক মৃত্যু হয়। পুলিশ বলেছে, তিনি তার হোটেল রুমে নিজের মাথায় গুলি করে আত্মহনন করেন। অথচ পুলিশ সেখান থেকে তিনটি গুলি উদ্ধার করে। মাত্র একটি গুলি জর্জ রিভসের মাথায় লেগেছিল। আশ্চর্যের বিষয় হলো, বন্দুকের রেঞ্জের সাথে তিনটির একটি গুলিও রেঞ্জ ম্যাচ করেনি। জর্জের সহযোগী অভিনেতা বেল বর্ণন বলেন, সুপারম্যানে অভিনয় করার পর থেকে তিনি একদম শান্ত থাকতে শুরু করেন।তার মনে হতে থাকে, তিনি তার জীবন অযথা নষ্ট করছেন এবং এই কারণে তিনি আত্মহত্যা করেন।
  4. ক্রিস্টোফার রিভস, যিনি ১৯৭৮-১৯৯৫ এর মধ্যে আসা সকল সুপারম্যান ছবিতে অভিনয় করেন। তিনি একদিন ঘোড়‍দৌড়ের সময় অদ্ভুতভাবে ঘোড়ার পিঠ থেকে পড়ে যান এবং মারাত্মকভাবে আহত হন।এতে তার পিঠের হাঁড় ভেঙে যায় এবং তিনি গলার নিচ থেকে সম্পূর্ণ প্যারালাইজড হয়ে পড়েন। এর ৯ বছর পর তার মৃত্যু হয়।

রেহাই পেলোনা ছোট্ট শিশুটিও !

অভিশপ্ত সুপারম্যান ছবির পরবর্তী শিকার হয় লী কুগলি (Lee Quigley) নামের ৩ বছরের শিশুটি, যে সুপারম্যানের ছোটবেলার চরিত্রে অভিনয় করেছিলো। বাচ্চাটি রহস্যজনক কারণে মাত্র ১৪ বছর বয়সেই মারা যায়। এই সিনেমায় অভিনয়ের পর থেকেই সে নানান শারীরিক ব্যাধিতে ভুগছিলো। যা একসময় তাকে মৃত্যু পর্যন্ত নিয়ে থামায় !

Superman Returns রিজেক্ট করেছিল পুরো হলিউড

২০০৬ সালের মেগা বাজেটের হলিউড মুভি “Superman Returns” মুভিটির সুপারম্যান চরিত্রের জন্য পল ব্রেকার, জ্যুড ল এর মত অভিনেতাদের বাছাই করা হয়েছিলো। কিন্তু তারা এই মুভি রিজেক্ট করে দেয়, কারণ পুরো হলিউড সুপারম্যান সিরিজকে একটি অভিশপ্ত সিরিজ মানতে শুরু করে দিয়েছিলো। আর সে মুভির হিরোইন কেইট বসওর্থের রোমান্টিক জীবনে সমস্যার সৃষ্টি হয়, যার জন্য তিনি সুপারম্যান ছবির অভিশপ্ততাকে দায়ী করেন।

আরো বহু মানুষ যারা ডিসি কমিকসের এই ছবির সাথে সংযুক্ত ছিলেন, তারা প্রত্যেকেই কোনো না কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন।

আরো পড়ুনঃ

SHARE