রহস্যময় ৬ রেস্টুরেন্ট !

রেস্টুরেন্ট

মানুষ সাধারণত খাদ্যরসিক। প্রায় সকল মানুষই রুচিপূর্ণ সুস্বাদু খাবার পছন্দ করে। আর বেশি সুস্বাদু ও রুচিসম্পন্ন খাবার পেতে যে জায়গাটি অতি উত্তম, সেটা হলো রেস্টুরেন্ট। সেই রেস্টুরেন্টে গিয়ে যদি খাবারের সাথে এক্সট্রা কিছু বিনোদন পাওয়া যায়, তাতে দোষের কিছু নেই। এমনটা ভেবেই হয়ত কিছু কিছু রেস্টুরেন্ট মালিক অদ্ভুত সব রেস্টুরেন্ট তৈরি করেছেন, যেগুলো রহস্য এবং বিস্ময়তায় ভরা ! চলুন জেনে নেয়া যাক পৃথিবীর রহস্যময় ৬ রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে !

পৃথিবীর রহস্যময় ৬টি রেস্টুরেন্ট !

Sushi Naked restaurant – এই রেস্টুরেন্ট টি কানাডা, আমেরিকা এবং চায়নাতে অবস্থিত। এই রেস্টুরেন্টের জনপ্রিয়তা এতটাই বেশি যে এখান যেতে হলে ৬ মাস আগ থেকে বুকিং দিয়ে রাখতে হয়। এই রেস্টুরেন্টে খাবার প্লেটে করে সার্ভ করা হয়না। একটি Naked মেয়ের শরীরের উপরে সাজিয়ে দেওয়া হয়। আর সেখান থেকে তুলে খাবার খেতে হয়। যা শুনতে খারাপ লাগলেও মানুষ সেখানে যেতেই লাইন লাগিয়ে দেয়।

Naked restaurant – Naked শব্দটা শোনার পর হয়ত অনেকে এই রেস্টুরেন্ট আছে বলে বিশ্বাস করবেন না। কিন্তু এটা সত্যি যে, Naked রেস্টুরেন্ট আছে। লন্ডনে তৈরি করা হয়েছে এটি। এই রেস্টুরেন্টে কর্মচারী থেকে শুরু করে সবাই নগ্ন অবস্থায় থাকে। এই রেস্টুরেন্টে কোনো ইলেকট্রসিটি নেই। কাঁচের তৈরি কোনো জিনিস নেই। সব কাঠের তৈরি। খাবার সার্ভ করা হয় মাটির তৈরি প্লেটে। এই রেস্টুরেন্টের ওয়েবসাইটে ৫০ হাজার মানুষ আগ থেকেই সিট বুকিং করে রেখেছে। এবং অনেক মানুষ ওয়েটিং লিস্ট হয়েছে।

Twin star restaurant – এটা রাশিয়ার মস্কোতে অবস্থিত। এটি এমন একটি রেস্টুরেন্ট, যেখানে ওয়েটার থেকে শুরু করে সিকিউরিটি গার্ড পর্যন্ত সবাই জমজ। এই রেস্টুরেন্টে শুধু জমজদেরই কাজ দেয়া হয়। এই রেস্টুরেন্টে সকল কর্মচারী জোড়ায় জোড়ায় ঘুরে। সমস্ত রাশিয়া থেকে এই জমজ খুঁজে বের করা হয় এখানে কাজ দেয়ার জন্য এবং তাদের অধিক মাত্রায় বেতন দেয়া হয়।

Floating Restaurant – এই রেস্টুরেন্টটি কানাডা এবং ইংল্যান্ডে অবস্থিত। এই রেস্টুরেন্টটি এত জনপ্রিয় হওয়ার কারণ, সেখানে খাবার দেওয়ার পর টেবিল এবং মানুষদেরকে ক্রেনের সাহায্যে উপরে তুলে নেওয়া হয়। যা আকাশে ঝুলে থাকে। আর আকাশে বসে বসে মানুষ সুন্দর এবং সুস্বাদু খাবারের মজা নেয়।

Waterfalls restaurant – ফিলিপাইনের রাজধানী ভ্যালা এস্কুডিওরোর আশ্রয়স্থল উদ্যানের মাঝখানে অবস্থিত, জলপ্রপাতের রেস্টুরেন্টটি একটি নোয়া-জুতা নীতির কথা বলে, কারণ এটি একটি ছোট নদী এবং জলপ্রপাতের মাঝখানে অবস্থিত। বাঁশের টেবিল এবং পানিতে ভিজে স্টেশনগুলি রান্না করে একটি ছোট জলপ্রপাতের ভেতর থেকে মাত্র ফুটে বসে থাকে, যার ফলে নগরা নগ্নপদে খাবার পর পর অতিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও অতিথিরা ঝাঁকুনি খেয়ে জলের নিচে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

Buns and Guns restaurant – এই রেস্টুরেন্ট টি লেবাননে অবস্থিত। এই রেস্টুরেন্টের বিশেষত্ব হলো এটিকে একটি মিলিটারী ক্যাম্পের মত করে তৈরি করা হয়েছে। এই রেস্টুরেন্টের প্রতিটা জায়গায় বন্দুক ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এই রেস্টুরেন্টের কর্মচারীদের হাতে ও বন্দুক থাকে। এই রেস্টুরেন্টের খাবারের নামগুলোও বুলেট ও বন্দুকের নামে রাখা হয়ছে।

Comments

comments

SHARE