fbpx

গেম অফ থ্রোনস : হাউজ ব্যারাথিওন

বিশ্বজুড়ে ব্যাপক মাতামাতি চলছে গেম অফ থ্রোনস নিয়ে ! এই মেগা সিরিয়ালের মূল কাহিনী গড়ে উঠেছে ছয়টি গ্রেট হাউজকে কেন্দ্র করে। এই ছয়টি হাউজের উৎপত্তি এবং কাদেরকে ঘিরে সারা জাগানো মেগা সিরিয়ালটি রচিত হয়েছে, চলুন একে একে তাদের সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক !

প্রাচীন হাউজগুলোর মধ্যে থেকে ব্যারাথিওন হাউজটিই হচ্ছে সব থেকে নতুন। ওরাস ব্যারাথিওন এই হাউজটি প্রতিষ্ঠা করেন। কথিত আছে, এইগোন দ্যা ড্রাগনের বাস্টার্ড ভাই সে। ওরাস ব্যারাথিওন সবার নজরে আসে কারণ সে এইগোনের সব থেকে হিংস্র এবং ভয়ংকর কমান্ডার ছিলেন। আরগালিক দ্যা স্ট্রম কিং’কে ওরাস পরাজিত করলে এইগোন আরগালিকের ক্যাসল, তার সম্পত্তি এবং আরগালিকের সুন্দরী মেয়েকে ওরাস’র উপহার স্বরূপ দান করেন। ওরাস আরগালিকের মেয়ের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার মাধ্যমে তার ব্যানার নাম এবং তাদের সম্মানকে নিজের প্রতীক হিসাবে গ্রহণ করেন।

ব্যারাথিওন হাউজের প্রতীক হচ্ছে কালো পুরুষ হরিণ, যার মাথায় মুকুট পরিহিত এবং যে সোনালী ভূমির উপরে দাঁড়িয়ে আছে। তাদের স্লোগান হচ্ছে, Ours is the Fury !

গেম অফ থ্রোনস এর হাউজ ব্যারাথিওনদের যারা আছেন অথবা ছিলেন, তারা হলেন –

  • কিং রবার্ট ব্যারাথিওন, ব্যারাথিওন হাউজের অধিপতি
  • তার স্ত্রী কুইন সার্সি (হাউজ ল্যানিস্টার)
  • তাদের তিন সন্তান প্রিন্স জাফরি, প্রিন্সেস মারসেলা, প্রিন্স টমেন
  • কিং রবার্টের ভাই ‘স্ট্যানিস ব্যারাথিওন’ লর্ড অফ ড্রাগনস্টোন, মাস্টার অফ শিপ
  • তার স্ত্রী লেডি সালসে, হাউজ ফ্লরেন্ট
  • এবং তাদের একমাত্র কন্যা শিরিন।

ড্রাগনস্টোনের প্রতি অনুগত ছোট হাউজগুলো হচ্ছে –

  • সেল্টিগার
  • ভ্যালারিয়ন
  • সিওর্থ
  • বার এম্মন
  • সানগ্লাস

কিং রবার্টের অন্য আরেকজন ভাই ‘রেনলি ব্যারাথিওন’ লর্ড অফ স্ট্রম ইন্ড, মাস্টার অফ ল। এবং তার কাউন্সিল অত্যন্ত ছোট।

স্ট্রম ইন্ডের প্রতি অনুগত ছোট হাউজগুলো হচ্ছে – সালমি, ওয়াডলি, পেন্রোজ, এরোল, এস্টারমন্ট, টার্ট, ট্রান্ট, সোয়ান, ডন্ড্যারিয়ন, ক্যারন।

ব্যারাথিওন হাইজের অন্যান্যরা হচ্ছেন –

  • পাইসিলি, গ্র্যান্ড মেইস্টার
  • লর্ড পিটার ব্যালিস, যিনি লিটিল ফিঙ্গার নামে পরিচিত এবং তাকে মাস্টার অফ কয়েন বলাও হয়ে থাকে। কিংস্ল্যান্ডিং এর সব থেকে বড় পতিতালয় তিনি চালান।
  • স্যার ব্যারিস্টান সেলমি, লর্ড কমান্ডার অফ কিংসগার্ড
  • ভ্যারিস’ তিনি একজন কাউন্সিলর নংপুসক বলে সব্বাই থেকে তাচ্ছিল করলেও মাকড়সা নামেও সে পরিচিত। কারণ তার স্পাই প্রতিটা হাইজের সর্বত্র। তাকে মাস্টার অফ উইস্পার বলা হয়ে থাকে।
  • স্যার ইলেন পায়েন’ কিং রবার্টের হেডম্যান এবং তাকে দ্যা কিংস জাস্টিস বলা হয়।
  • সান্দোর সিলিগান বা দ্যা হাউন্ড নামে পরিচিত, প্রিন্স জাফরির গার্ড অথবা ওয়াদাবদ্ধ শিল্ড ছিলেন।
  • জ্যানোস স্লিন্ট, কিংস ল্যানডিঙের সিটি ওয়াচের কমান্ডার
  • মুন বয়, রাজ সভার ভাঁড়
  • ল্যান্সেল
  • টাইরেক ল্যানিস্টার, স্কয়ার অফ কিং এবং রানি সার্সি’র আত্মীয়
  • স্যার আরোন স্যাংটাগার, মাস্টার্স এট আর্মস
  • স্যার জিমি ল্যানিস্টার, যিনি কিংস্ল্যায়ার নামেই পরিচিত এবং অত্যন্ত দুর্ধর্ষ একজন যোদ্ধা। তিনি রাজার কাছে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং এই প্রতিজ্ঞার কারণেই তিনি কখনো বিয়ে করতে পারবেন না এবং সন্তান জন্ম দিতে পারবেন না।
  • জিমি ল্যানিস্টার এবং কুইন সার্সি জমজ ভাইবোন এবং তারা দুজন দুইজনকে ভালবাসেন। কুইন সার্সির তিন সন্তানের জনক জিমি ল্যানিস্টার।

এছাড়াও হাউজ ব্যারাথিওনদের মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য অন্যান্যরা হলেন –

  • স্যার বরোস ব্লাউন্ট
  • স্যার প্রিস্টন গ্রিনফিল্ড
  • স্যার মার্যে ন ট্রান্ট
  • স্যার মান্ডন মুর
  • স্যার আরাস ওকহার্ট

Reference:

  • A song of ice and fire
  • The fantasy Novel of the year ‘Game of Thornes’ by Robert Jordan.

গেম অব থ্রোনস : হাউজ স্টার্ক নিয়ে আমাদের পরবর্তী পোস্ট আসছে। চোখ রাখুন ছারপোকায়…

Leave a Reply

error: Content is protected !!