fbpx

বিশ্বের অদ্ভুত কিছু খাবারের তালিকা (পর্ব ২)

একজন বাঙালী হিসেবে ভাত-মাছ, কেক-বিস্কিট আর ফাস্টফুড সহ স্বাভাবিক কিছু খাবার ছাড়া আর তেমন কিছুই আমরা সচরাচর চিন্তা করতে পারি না। কিন্তু এমন কিছু খাবার আছে, পৃথিবী জুড়ে মানুষ খায়, যেগুলোর নাম আর বর্ণনা শুনলে হয়ত কয়েক ঘন্টার জন্য আপনার খাওয়া-দাওয়াই বন্ধ হয়ে যাবে ! চলুন জেনে নিই তেমনই কিছু অদ্ভুত খাবারের কথা…

বিশ্বের অদ্ভুত কিছু খাবারের তালিকা

১: রকি মাউন্টেন ওয়েস্টার (Rocky Mountain Oyster) : উ‍ঁহু, নাম ওয়েস্টার হলেও এটি কোনো ঝিনুক না। এটি হচ্ছে আমেরিকার অঙ্গরাজ্য মন্টানার ঐতিহ্যগত খাবার। গবাদি পশুর অন্ডকোষ তেলে ভেজে ফ্রাই করে খাওয়াটা সেখানকার ঐতিহাসিক নিয়ম।

Rocky Mountain Oysters

Rocky Mountain Oysters

২. ঘাসফড়িং (Chapulines) : মেক্সিকোর অক্সাকা রাজ্যে ঘাসফড়িং খাওয়াটা আর সাধারণ ৮-১০টা খাবারের মতই। বার ও টোকো দোকানে হরহামেশাই পাওয়া যায় এই খাবারটি। ঘাসফড়িংয়ের সুস্বাদু এই আইটেমটিকে বলা হয় চ্যাপুলিনস ! তেলে কড়া ভাজা করে লবন ও মরিচ মেখে খাওয়া হয় এটি।

চ্যাপুলিনস (Chapulines)

চ্যাপুলিনস

৩. পোকা ধরা পনির (Casu marzu) : সাধারণত কোনো খাবারের পোকা ধরলে আমরা সেটি ফেলে দিই। কিন্তু ইতালির দ্বীপ সাউদিনিয়ায় আপনার পনিরে যত বেশি পোকা পাওয়া যাবে, তার দাম তত বেশি হবে।

Casu marzu

Casu marzu

সেখানে পনিরকে খোলা জায়গায় রেখে দেওয়া হয়, যাতে মাছি এসে এর উপর ডিম পাড়ে। তারপর সেই ডিম থেকে বাচ্চা হলে সেটিকে খায় ওই দ্বীপের বাসিন্দারা। এছাড়াও এই পনিরে ম্যাগট পোকার আবাসও পাওয়া যায়। যা কিনা কবরে মৃত ব্যক্তিদের শরীর ফুটো করতে সহায়তা করে !

৪. ভার্জিন বয় এগ (Virgin Boy Egg) : ডিমের বহু অদ্ভুত রকম খাবার রীতির মধ্যে এটি অন্যতম। চায়নার ডংইয়ং নামক জায়গায় দশ বছরের কম বয়সী ছেলেদের মূত্র দিয়ে হাঁসের ডিম সিদ্ধ করে মূত্রসমেত সেই ডিম খাওয়া হয়। তাদের ধারণা এতে তারা হিট স্টোক থেকে রক্ষা পায়।

Virgin Boy Eggs

Virgin Boy Egg

৫. উইচেটি পোকা (Weevils Bugs) : ভাবুন হাতের আঙ্গুল এর সমান বড় সাদা রঙের পোকা। যার স্বাদ কাঁচা ডিমের মত। খেতে কেমন লাগবে? অস্ট্রেলিয়ার অর্বেজেনিয়ার বাসিন্দারা এটি তাদের দৈনিন্দ প্রোটিনের চাহিদা মেটানোর জন্য খেয়ে থাকে। সাধারণত বাচ্চা ও মহিলারা এটি সংগ্রহ করে তারপর কাঁচা অবস্থাতেই খেয়ে ফেলে।

Weevils Bugs

Weevils Bugs

৬. গুয়েনা পিগ : ইঁদুরের মত ছোট, আদুরে দেখতে এই প্রাণীটিকে পৃথিবীর সব জায়গায়ই পোষা প্রাণী হিসেবে পালন করা হয়, শুধু পেরু বাদে। সে দেশের মানুষ এই প্রাণীটিকে তেলে ভেজে খায়।

৭. ডিউরিয়ান (Durian) : পঁচা, গন্ধ যুক্ত মোজা, পঁচা পায়খানার গন্ধ যুক্ত এক ফলের নাম ডিউরিয়ান। এটি দেখতে অনেকটা কাঁঠালের মত। পাওয়া যায় সিঙ্গাপুরে…

Durian

Durian

Durian এর গন্ধ এতটাই খারাপ যে, এই ফল নিয়ে কোনো জনসাধারণের যানবাহনে চড়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সিঙ্গাপুর সরকার !

৮. এসক্যামল (Escamole) : পিঁপড়ার ডিমকে বেশ পুষ্টিকর খাবার হিসেবে খাওয়া হয় মেক্সিকোতে। মেক্সিকোবাসীর মতে এর স্বাদ অনেকটা বাটার আর বাদামের মত খেতে।

Escamole (Ant's Egg)

Escamole (Ant’s Egg)

৯. হাকারী (Hound shark) : আইল্যান্ডের গভীর সমুদ্রে প্রাচীন ও দুর্লভ এক প্রজাতির শার্ক পাওয়া যায়। আইল্যান্ডবাসী এ মাছকে শিকার করে কেটে তাদের ঘরের নিচে শুকোতে রেখে দেয়। তাদের জন্য এটি বেশ দামী ও সুস্বাদু খাবার হলেও সাধারণ মানুষের কাছে এটি পৃথিবীর সবচেয়ে খারাপ স্বাদযুক্ত একটি খাবার হিসেবে আখ্যায়িত।

১০. মাতাল চিংড়ি (Drunken shrimp) : চীনে সামদ্রিক চিংড়ি মাছকে অ্যালকোহলে চুবিয়ে রাখা হয়। তারপর অ্যালকোহল থেকে উঠিয়ে কাঁচা ও জীবন্ত খাওয়া হয়।

Drunken Shrimp

Drunken Shrimp

১১. বাচ্চা অক্টোপাস (Baby Octopus): অক্টোপাসের জীবন্ত লার্ভাকে গোল মরিচ ও সেসমি তেলে ডুবিয়ে জীবন্ত খাওয়া হয়। খাওয়ার সময় মুখের ভিতর এটির নড়াচড়া করার অনুভূতি পাওয়া যায়।

বাচ্চা অক্টোপাস

বাচ্চা অক্টোপাস

১২. শুকনো টিকটিকি (Dry Lizard) : এশিয়ার বিভিন্ন জায়গায় টিকটিকিকে শুকিয়ে সংরক্ষণ করা হয়। তারপর এটিকে স্যুপ অথবা এলকোহলে ডুবিয়ে রেখে খাওয়া হয়। তাদের বিশ্বাস এতে ঔষুধি গুণাগুণ থাকে।

Leave a Reply

error: Content is protected !!