ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশিদের অনন্য কীর্তি

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ইতিহাসে মাত্র সাতজন অলরাউন্ডারের ৫০০ রান ও ২০ উইকেটের ডাবল রয়েছে। এরমধ্যে আমাদের সাকিব আল হাসান একজন।

কমপক্ষে ৫০০ রান ও ২০ উইকেট থাকাদের তালিকা :

  • সনাথ জয়সুরিয়া ১১৬৫ রান, ২৭ উইকেট
  • জ্যাক ক্যালিস ১১৪৮ রান, ২১ উইকেট
  • স্টিভ ওয়াহ ৯৪৭ রান, ২৭ উইকেট
  • যুবরাজ সিং ৭৩৮ রান, ২০ উইকেট
  • কপিল দেব ৬৬৯ রান, ২৮ উইকেট
  • ইমরান খান ৬৬৬ রান, ৩৪ উইকেট
  • সাকিব আল হাসান ৫৪০ রান, ২৩ উইকেট।

মুশফিকুর রহিমের ক্রিকেট বিশ্বকাপে রান ৫১০, ডিসমিসাল ১৮। এরমধ্যে ক্যাচ ১৩টি এবং স্ট্যাম্পিং ৫টি। ক্রিকেট বিশ্বকাপে ৫০০ রান ও ১৫টি ডিসমিসাল করা উইকেট কিপারের সংখ্যা সাতজন। এরমধ্যে একজন আমাদের মুশফিক !

বিশ্বকাপে কমপক্ষে ৫০০ রান ও ১৫ ডিসমিসাল করা উইকেট কিপার :

  • কুমার সাঙ্গাকারা ১৫৩২ রান, ৫৪ ডিসমিসাল
  • অ্যাডাম গিলক্রিস্ট ১০৮৫ রান, ৫২ ডিসমিসাল
  • রাহুল দ্রাবিড় ৮৬০ রান, ১৬ ডিসমিসাল
  • ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ৭৪২ রান, ৩২ ডিসমিসাল
  • অ্যালেক স্টুয়ার্ট ৬০৬ রান, ২৩ ডিসমিসাল
  • মুশফিকুর রহিম ৫১০ রান, ১৭ ডিসমিসাল
  • মহেন্দ্র সিং ধোনী ৫০৭ রান, ৩২ ডিসমিসাল।

বিশ্বকাপে একই ম্যাচে ৮৫+ রান ও ৪টি ডিসমিসাল করতে পারা উইকেট কিপারের সংখ্যা দুই। কুমার সাঙ্গাকারা ও মুশফিকুর রহিম। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাডিলেড ওভালে মুশফিক ব্যাট হাতে ৮৯ রান করার পাশাপাশি উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে নেন চারটি ক্যাচ।

এখন অবধি ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশি ক্রিকেটার খেলেছেন ৫১ জন :

  • ২০ এর অধিক ম্যাচ খেলেছেন ৩ জন
  • ১০ এর অধিক ম্যাচ খেলেছেন ১২ জন
  • ব্যাটিং করতে নেমেছেন ৪৯ জন
  • বোলিং করেছেন ৩২ জন
  • ১০০ এর অধিক রান করেছেন ১৮ জন
  • ২০০ এর অধিক রান করেছেন ৫ জন (তামিম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ, আশরাফুল)
  • ৫ এর অধিক উইকেট নিয়েছেন ১০ জন
  • ১০ এর অধিক উইকেট নিয়েছেন ৬জন (সাকিব, রাজ্জাক, খালেদ মাহমুদ, মাশরাফি, রফিক, রুবেল)
  • উইকেট কিপার ছাড়া ৫টা ক্যাচ নিতে পেরেছেন ৫ জন (আফতাব, বাশার, সাকিব, সৌম্য, তামিম)