যারা বিশ্বকাপের টিকেট পায়নি, তাদের নিয়ে গড়া একাদশ

ইতালি বিহীন বিশ্বক‍াপ

এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮ তে অনেক প্রিয় মুখকেই আর দেখা যাবেনা। দেখা যাবে বেশ কয়েকটি দলকে, বিশ্বকাপে যাদের অনুপস্থিতির কথা কেউ ঘুণাক্ষরেও ভাবতে পারেনি ! একনজরে দেখে নেয়া যাক, যারা বিশ্বকাপের টিকেট পায়নি, তাদের নিয়ে গড়া একাদশ !

গোলরক্ষক : জিয়ানলুইজি বুফন

বিশ্বকাপজয়ী সর্বকালের অন্যতম সেরা এই গোলরক্ষকের রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন ধূলিসাৎ হয়ে যায় ইউরোপিয়ান বাছাইপর্বের প্লে অফ ম্যাচে সুইডেনের কাছে হেরে। ৬০ বছর পর বিশ্বকাপে থাকবেনা তার দল ইতালি !

সেন্টারব্যাক : ভার্গিল ভ্যান ডাইক

লিভারপুল তারকা এবং বিশ্বের সবচেয়ে দামী এই সেন্টারব্যাক রাশিয়া বিশ্বকাপে তার প্রতিভার আলো ছড়াতে পারবে না।তার দল নেদারল্যান্ডস বাছাইপ্রক্রিয়ার গ্রুপ পর্বেই বাদ পড়ে যায়।

সেন্টারব্যাক : লিওনার্দো বোনুচ্চি

বর্তমান ফুটবলের অন্যতম সেরা এই ইতালিয়ান ডিফেন্ডারেরও জায়গা হয়নি রাশিয়া বিশ্বকাপে। গুরুত্বপূর্ন প্লে অফ ম্যাচে সুইডেনের বিপক্ষে ভাঙ্গা নাক নিয়ে খেলেও বাঁচাতে পারেনি তার দলকে।

রাইটব্যাক : এন্তোনিও ভ্যালেন্সিয়া

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বর্ষসেরা এই খেলোয়াড় ব্যর্থ হয় তার জাতীয় দল ইকুয়েডর এর হয়ে ল্যাটিন আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব উতরাতে।

লেফটব্যাক : ডেভিড আলাবা

বিশ্বের অন্যতম সেরা এই লেফটব্যাক রাশিয়া বিশ্বকাপে তার গতি ও স্কিলের প্রদর্শন করতে পারবে না। বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে ৬ বার বুন্দেসলীগা জেতা এই খেলোয়াড়ের জাতীয় দল অস্ট্রিয়া পেরোতে পারেনি ইউরোপিয়ান বাছাইপর্বের যুদ্ধ।

সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার : আর্তুরো ভিদাল

পরপর দুই বিশ্বকাপে এবং শিরোপাজয়ী কোপা আমেরিকায় চিলির মিডফিল্ডের মূল ভরসা ভিদাল থাকবে না এবারের গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে। ইনজুরির কারনে ভিদাল বাছাইপর্বের গুরুত্বপূর্ন ম্যাচে ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলতে পারেননি।

সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার : মার্কো

ভেরাত্তি আন্দ্রেয়া পিরলোর উত্তরসূরি এই ইতালিয়ান মিডফিল্ডার আলো ছড়াবেন না বিশ্বকাপের মঞ্চে। দূর্ভাগ্যজনক ভাবে গ্রোয়েন ইনজুরির কারনে ইউর ২০১৬ থেকেও ছিটকে পড়েছিলেন এই তারকা মিডফিল্ডার।

এটাকিং মিডফিল্ডার : রিয়াদ মাহরেজ

লেস্টার সিটির স্বপ্নের প্রিমিয়ার লীগ জয়ী দলের মূল তারকা এই এটাকিং মিডফিল্ডারের দেশ আলজেরিয়া এবার বিশ্বকাপে জায়গা করে নিতে পারেনি। অথচ তার দল ব্রাজিল বিশ্বকাপে তাক লাগিয়ে দিয়ে সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখছিলো।

লেফট উইং : এলেক্সিস সানচেজ

বার্সা, আর্সেনাল ও ইউনাইটেডের মত বড় দলের হয়ে খেলা এই উইঙ্গার মাতাবেন না রাশিয়ার মঞ্চ। ভিদালের পাশাপাশি দুইবার চিলির কোপা আমেরিকা জয়ে সানচেজের ভূমিকাও ছিল অপরিসীম।

রাইট উইং : গ্যারেথ বেল

বিশ্বের অন্যতম দ্রুতগতির এই উইঙ্গার ইউরো ২০১৬ তে ওয়েলসের হয়ে ৩ গোল করে দলকে সেমিফাইনালে নিয়ে যান। কিন্তু ২০১৪ সালের মত এবারু ব্যর্থ হন বিশ্বকাপে জায়গা করে নিতে।

সেন্টার ফরোয়ার্ড : পিয়েরে এমেরিক

অবামেয়াং গ্যাবনের এই তারকা বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকারদের মধ্যে একজন। আফ্রিকার এই দেশটি কখনো বিশ্বকাপের মূল পর্বে জায়গা করে নিতে পারে। বিশ্বকাপের মঞ্চে অবামেয়াং এর ডিগবাজি সেলিব্রেশন দেখাটা তাই ফুটবল ভক্তদের ভাগ্যে নেই।

সাবস্টিটিউট :

  • ইয়ান ওবলাক (স্লোভেনিয়া)
  • কিয়েলিনি (ইতালি)
  • আন্দ্রেয়া বারজাগলি (ইতালি)
  • ক্রিশ্চিয়ান পুলিসিচ (যুক্তরাষ্ট্র)
  • মিরালেম পিয়ানিচ (বসনিয়া এন্ড হার্জেগোভিনা)
  • নাবি কেইতা (গিনি)
  • আরিয়েন রোবেন (নেদারল্যান্ডস)
  • এডিন জেকো (বসনিয়া এন্ড হার্জেগোভিনা)
  • সিরোন ইমমোবিলে (ইতালি)

Comments

comments

SHARE